স্বল্প খরচে খুব সহজে তৈরি করে ফেলুন পাওয়ার সাপ্লাই

20
পাওয়ার সাপ্লাই

আমরা যারা ইলেক্ট্রনিক্সের প্রজেক্ট করতে চাই তাদের সবারই একটা জিনিসের প্রয়োজন হয়, আর তা হলো পাওয়ার সাপ্লাই। বলা হয়ে থাকে যে কোন ইলেক্ট্রনিক্স সার্কিটের প্রান হলো পাওয়ার সাপ্লাই।

আমরা ইলেক্ট্রনিক্সের ক্ষেত্রে দুইভাবে পাওয়ার সাপ্লাই করে থাকি। এক হলো ব্যাটারী দিয়ে এবং অপরটি হলো বিদ্যুতের সাহায্যে

ব্যাটারি দিয়ে পাওয়ার সাপ্লাই একদম সহজ। ব্যাটারির ভোল্ট অনুযায়ী সার্কিটে পজিটিভ এবং নেগেটিভ প্রান্তে যুক্ত করলে হয়ে যাবে।

আমরা বাসা-বাড়িতে বিদ্যুতের সাহায্যে পাওয়ার সাপ্লাই তৈরি করতে পারি। আমরা জানি যে বাসাবাড়িতে সাধারণত ২২০ ভোল্ট থাকে।

কিন্তু আমাদের ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রপাতি অনেক কম ভোল্টে চলে তাই এই ভোল্টেজ কে কমিয়ে আনাতে হবে। আমরা ইতিমধ্যে  ট্রান্সফরমার লিখায় থেকে জেনেছি যে স্টেপ ডাউন ট্রান্সফরমার ভোল্টেজ কে কমানোর জন্য ব্যবহার করা হয়।

প্রয়োজনী কম্পোনেন্ট এর তালিকাঃ
মূল্য তালিকাঃ

শুরুতেই বলে রাখি, আমরা যে মূল্য তালিকা দিয়েছি তা শুধুমাত্র আপনাদের একটা ধারনা দেওয়ার জন্য। বাজারে এর চেয়ে মূল্য কম বা বেশি হতে পারে। এর জন্য ভোল্টেজ ল্যাব দায়ি থাকবে না।

সার্কিট ডায়াগ্রাম:পাওয়ার সাপ্লাই

শুরুতেই একটি ট্রান্সফরমার ব্যবহার করা হয়েছে যা ভোল্টেজকে স্টেপ ডাউন করেছে। এটি ২২০ ভোল্টকে কমিয়ে ১২ ভোল্টে আনবে। মনে রাখতে হবে যে ট্রান্সফরমারে আউটপুটে  ১২ ভোল্ট পাবো সেই ১২ ভোল্ট হলো এসি ভোল্টেজ।

আপনার যদি আউটপুটে ৬ ভোল্ট বা ৯ ভোল্ট বা ১২ ভোল্টের আউটপুট প্রয়োজন হয় তাহলে আপনি এই মানের ট্রান্সফরমার ব্যবহার করলেই হবে।

এরপরেই চারটি ডায়োড ব্যবহার করা হয়েছে। এই চারটি ডায়োডকে ব্রীজ রেক্টিফায়ার আকারে সংযোগ করা হয়েছে। এই ডায়োড গুলো ১২ ভোল্ট এসিকে ডিসিতে রূপান্তরিত করবে

এরপরে আমরা একটা ক্যাপাসিটর দেখতে পাচ্ছি। এই ক্যাপাসিটরের কাজ ফিল্টারিং করা বা রিপল দূর করা। ক্যাপাসিটর ১২ ভোল্টেজ কে বিশুদ্ধ ডিসিতে রূপান্তরিত করবে।

নিচে ছবি দেখলে আশা করি ব্যাপারটা বুঝতে পারবেন।

পাওয়ার সাপ্লাই

 

এই প্রজেক্ট সম্বন্ধে আপানাদের কোন প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই কমেন্ট করুন। সবাই ভালো থাকবেন এই প্রত্যাশাই আজকের মতো বিদায়।

20 COMMENTS

  1. মহিউদ্দিন

    Comment:আমি একেবারে নতুন কাজশিখতে খুবই আগ্রহ এবং আমার কাছে এই ইলেকট্রনিকস কাজ ভাল লাগে তাই আমাকে শিখাবেন। আল্লাহ তো আপনাদের অনেক গেয়ান দিয়েছেন তো একটু আমাদের কে শিখান

    • ভাইয়া,
      আমরা যতটুকু জানি তা আপনাদের সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করি। আল্লাহ পাক সবাইকে জ্ঞান দিয়ে দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন :)। আমাদের সাথেই থাকুন। আমরা চেষ্টা করবো ভালো কিছু উপস্থাপনা করতে। আর পাশা পাশি নিজের চেষ্টা চালিয়ে যাবার জন্য অনুরোধ রইলো।

      • মো: মহিউদ্দিন

        Comment:রনি ভাই আমার লেখাটা আপনারা পেয়েছেন তাই আমি নিজেকে অনেক ভাগ্যবান মনে করি, কারন আমি মোবাইলে কি ভাবে আপনাদের কাছে লিখে পাঠাতে হয় তা ভালভাবে এতদিন বুঝিনি, আমি চেস্টা করবো সবসময় আপনাদের সাথে থাকার জন্য, রনি ভাই আপনার ইমু নাম্বার টা দিন আমি আপনার সাথে কথা বলবো।

  2. এত সুন্দর করে বুঝিয়ে লিখার জন্য ভাই আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

    • আপনাকে ও ধন্যবাদ আমাদের সাপোর্ট দেওয়ার জন্য।

  3. Comment :এত সুন্দর করে বুঝিয়ে লিখার জন্য ভাই আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

    • মো: মহিউদ্দিন

      Comment:আমি ভাই সহজ সরল মানুষ প্যাচ দিয়ে কথা বলতে পারিনা।আমার লেখা আপনার কাছে পছন্দ হয়েছে তাই আপনাকে অনেক অনেক জাঝাকাল্লাহ।

  4. মো: মহিউদ্দিন

    Comment:মো: মুসলিম ভাই আপনি কি ইলেকট্রনিকস কাজ জানেন তাহলে আপনি আমাকে আপনার ইমু নাম্বারটা দিন আমি নতুন মানুষ ইলেকট্রনিকস জগতে। তাই যারা কাজ জানে তাদের সাথে কথা বলতে চাই আমাকে একটু সাহায্যে করেন।

  5. অসম্ভব ভালো লাগল আপনাদের বুঝানোর ধরনটা
    অনেক অনেক ধন্যবাদ

    • ধন্যবাদ ভাইয়া। সাথেই থাকুন।

  6. Thanks a lot. I want to downward pdf file of Electrical and Electronics book.How I do it?

    • You can do it by the particular post.. If you feel problem then inform me, i can help you..

    • ধন্যবাদ ভাইয়া।

  7. হাবীব

    ক্যাপাসিটরের + – চিনবো কি ভাবে

    • ক্যাপাসিটর পজেটিভ সাইড লেগ বড় থাকে। এছাড়া কিছু কিছু ক্যাপাসিটরের গায়ে – থাকে যা নেগেটিভ প্রান্ত।

  8. এরকম ত আগে জানতামনা।ধন্যবাদ।

  9. Md. Sajjad Hossen

    Ekhane output e 12 voltage AC supply dile ki obosta hoto r 12 DC korar karon ta ki jodi bolten upokrito hotam.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here