শর্ট সার্কিট, ওপেন সার্কিট , ক্লোজ সার্কিট  সম্বন্ধে বিস্তারিত আলোচনা

0
1229
শর্ট সার্কিট

শর্ট সার্কিট, ওপেন সার্কিট , ক্লোজ সার্কিট  জানার আগে আমাদের কে জানতে হবে সার্কিট কাকে বলে।সার্কিট বলতে সাধারণত একটি ক্লোজ লোপাকে বুঝায় যেখান দিয়ে ইলেকট্রিক কারেন্ট প্রবাহিত হতে পারে।ইলেকট্রিক কারেন্ট প্রবাহিত হবার জন্য অবশ্যই একটি সোর্স (ব্যাটারি/এসি সোর্স) লাগবে। 

শর্ট সার্কিট

উপরের সার্কিট টি লক্ষ্য করলে দেখতে পাবো যে এটি একটি কমপ্লিট সার্কিট। সার্কিট টিতে একটি ব্যাটারি সোর্স একটি লোড (বাতি) দেয়া আছে। 

শর্ট সার্কিটঃ

ব্যাখাঃ আপনি ৫ ফুট উচ্চতার একটি পানি ভর্তি ড্রাম মনে মনে কল্পনা করুন এবং মনে করুন ড্রামটি পানি দ্বারা পূর্ণ হয়ে গেছে এবং পানি ড্রাম বেয়ে মাটিতে গড়িয়ে পড়ছে। অর্থাৎ ড্রাম বেয়ে পানি ৫ ফুট উচ্চতা থেকে নিচে মাটিতে এসে পড়ছে।

কারেন্ট ভোল্টেজ পাওয়ার নিয়ে বিস্তারিত পড়ুন

যেহেতু ড্রামটির উচ্চতা ৫ ফুট সেহেতু পানি ড্রাম বেয়ে মাটিতে পৌছাতে ৫ ফুট পরিমাণ রাস্তা অতিক্রম করছে। এখন আপনি যদি ড্রামটির দেওয়ালে মাটি থেকে ৩ ফুট উচ্চতায় একটি ছিদ্র করে দেন তাহলে ড্রামটির পানি ড্রামের মুখ থেকে অর্থাৎ ৫ ফুট উচ্চতা থেকে মাটিতে পড়া বাদ দিয়ে ৩ ফুট উচ্চতার সেই ছিদ্রটি থেকেই মাটিতে গড়িয়ে পড়তে শুরু করবে।

লক্ষ করুনঃ
(১) শুরুতে যখন ড্রামের পানি ড্রামের মুখ বেয়ে মাটিতে পড়ছিলো তখন পানির রাস্তা অতিক্রম করতে হয়েছিলো ৫ ফুট রাস্তা (কারণ ড্রামটির উচ্চতা ৫ ফুট)।

(২) কিন্তু আপনি ড্রামের তলা থেকে ৩ ফুট উচ্চতায় ছিদ্র করে দেবার পর থেকে পানি মাটিতে এসে পড়তে অতিক্রম করছে মাত্র ৩ ফুট রাস্তা।

সুতরাং এখানে দেখা যাচ্ছে পানি সহজ এবং ছোট রাস্তা খুঁজে পাবার ফলেই ৫ ফুটের দীর্ঘ্য রাস্তা বাদ দিয়ে ৩ ফুটের ছোট রাস্তাটাকেই বেছে নিয়েছে। প্রকৃতির সমস্ত ঘটনা গুলি এরকম একই নিয়ম মেনে চলে।
সব কিছুই চাই সহজ রাস্তা খুঁজে তার গন্থব্যের দিকে এগিয়ে যেতে । পানি, বিদ্যুৎ, আলো সহ সকল প্রাকৃতিক উপাদান সর্বদা সহজ রাস্তাতেই তার গন্থব্যে পৌছাতে চাই, এমনকি আপনি বা আমিও এর ব্যতিক্রম নয়।

একটা সার্কিটের বিদ্যুৎ তারের ভিতর দিয়ে নির্দিষ্ট কিছু রাস্তা দিয়ে চলাচল করার কথা, কিন্তু সেই রাস্তা যদি কনো কারনে সংক্ষিপ্ত হয়ে যায় তখন বিদ্যুৎ সেই সংক্ষিপ্ত রাস্তাটিকেই বেছে নেয় এবং যার দরুন শর্ট সার্কিট ঘটে।

এবার আরও একটু পরিষ্কার করে বলিঃ
আমার উদাহরণে পানি যখন ড্রাম বেয়ে ৫ ফুট উচ্চতা থেকে মাটিতে পড়ছিলো তখন পানির গতি কম ছিলো কারণ পানির চাপ ড্রামের উপরিভাগে কম। আমরা জানি গভিরতা বাড়ার সাথে সাথে পানির চাপ বৃদ্ধি পাই।
এইজন্য যখন আপনি ড্রামের ওয়ালে ভুমি থেকে ৩ ফুট উচ্চতায় একটা ছিদ্র করলেন তখনি পানির চাপও বেড়ে গেলো এবং আগের থেকে উচ্চ বেগে পানি মাটিতে পড়তে থাকলো। পানির চাপ বা প্রেশার বেড়ে গেলে অল্প সময়ে অনেক বেশি পরিমান পানি বেড়িয়ে আসতে পারে।

বিদ্যুতের ক্ষেত্রেও ব্যাপারটা অনুরুপ। ভোল্টেজকে বলা হয় বিদ্যুতের চাপ। ভোল্টেজ বেড়ে গেলে অল্প সময়ে অনেক পরিমান ইলেকট্রন বেড়িয়ে আসতে পারে অর্থাৎ ইলেকট্রনের প্রবাহ বা কারেন্ট বেড়ে যাই। এই ঘটনা হুবুহু পানির ড্রামের উদাহরণটির মতোই।

যখনি কনো সার্কিটে কারেন্ট বেড়ে যায় তখনি সার্কিটের তার গরম হতে থাকে অর্থাৎ বৈদ্যুতিক তারে কারেন্টের বা প্রবাহের বাড়তি একটা লোড পড়ে। এভাবে যখন কারেন্টের মাত্রা স্বাভাবিকের থেকে বহুগুনে বেড়ে যেতে থাকে তখন তারের উপর মাত্রাতিরিক্ত লোড পড়ার কারণে বৈদ্যুতিক তার পুড়ে যাই বা স্পার্কিং করা শুরু হয়। এই ঘটনাকেই আমরা দৈনন্দিন জীবনে শর্ট সার্কিট বলে চিনে থাকি।

শর্ট সার্কিট
শর্ট সার্কিট

ব্যাটারির পজেটিভ প্রান্ত এবং নেগেটিভ প্রান্তকে একটা ছোট তার দিয়ে সংযুক্ত করলে দেখবেন স্পার্কিং করা শুরু হয়েছে এটাও একটা শর্ট সার্কিট এর পরিচিত উদাহরণ । তাত্ত্বিকভাবে শর্ট সার্কিটের অর্থ হলো, তারের ভেতরে বিদ্যুৎ প্রবাহে বাধা বা ইমপিডেন্স শুন্যে নেমে যাওয়া।

তাত্ত্বিকভাবে বিশ্লেষণঃ Short একটি ইংরেজি শব্দ যার বাংলা অর্থ হচ্ছে সংক্ষিপ্ত বা ছোট। Short circuit কথাটার মানে হচ্ছে কোনো সার্কিটের যেকোনো দুটো টার্মিনালের এর মাঝে সরাসরি একটা পরিবাহীর কানেকশন। এই পরিবাহীর রেজিস্ট্যান্স বা বিদ্যুতকে বাঁধা দেয়ার ক্ষমতা অনেক কম থাকে।

শর্ট সার্কিট বলতে এমন একটি সার্কিট কে বুঝানো হয়েছে যা মূলত দুটি কন্ডাক্টরের  আড়াআড়িতে একটি লো রেজিস্ট্যান্স তারের কানেকশন। এর ফলে শর্ট কানেকশনের মধ্যে দিয়ে অত্যাদিক কারেন্ট সোর্স এ প্রবাহিত হয় এবং অনেক সময় পাওয়ার সোর্স টি পুড়ে যায়।

ওপেন সার্কিটঃ

Open শব্দের অর্থ বাংলা অর্থ খোলা। অর্থাৎ ওপেন সার্কিট মানে সার্কিট খোলা। ওপেন সার্কিট এমন এক ধরনের ইলেকট্রিক সার্কিট যার মধ্যে কারেন্টের ধারাবাহিক প্রবাহ বন্ধ অবস্থায় থাকে।

শর্ট সার্কিট

আপনি যখন সুইচ দিয়ে সার্কিট অন করেন তখন সেটা ক্লোজ সার্কিট আর যখন সুইচ অফ করেন তখন সেটা ওপেন সার্কিট। উপরোক্ত সার্কিট টি একটি ওপেন সার্কিট যেখান দিয়ে কারেন্ট প্রবাহিত হতে পারবে না।একটা সার্কিটে তার কোন কারণে ছিড়ে গেলে সেখানে আর বিদ্যুৎ চলাচল করতে পারেনা, এক্ষেত্রে তারটিতে বিদ্যুৎ প্রবাহের বাধা অসীমে পৌছেছে বলে ধরে নেওয়া হয় এবং বলা হয় সার্কিটটিটি ওপেন হয়েছে ।

কারেন্ট ভোল্টেজ পাওয়ার নিয়ে বিস্তারিত পড়ুন

ক্লোজ সার্কিটঃ

Closed একটি ইংরেজি শব্দ যারা বাংলা অর্থ বন্ধ। আদর্শ সার্কিটকেই মূলত ক্লোজ সার্কিট বলা হয়। ক্লোজ সার্কিট এমন এক ধরনের সার্কিট যেখানে কারেন্ট কোন প্রকার সমস্যা ছাড়া ধারাবাহিকভাবে প্রবাহিত হতে পারে।

শর্ট সার্কিট
ক্লোজ সার্কিট / আদর্শ সার্কিট

অর্থাৎ এটি ওপেন সার্কিট যেমন খোলা থাকে যেখানে কারেন্ট ফ্লো হতে পারেনা, কিন্তু ক্লোজ সার্কিট হলো বন্ধ সার্কিট যেখানে কারেন্ট প্রবাহিত হতে পারে ফলে লোড সচল থাকে।

LEAVE A REPLY