Distance Protection রিলে নিয়ে সহজ ভাষায় আলোচনা

0
436

Distance Protection রিলে নাম দেখেই বুঝা যাচ্ছে এই রিলে মহাশয়ের সাথে Distance বা দূরত্বের একটা রিলেশন আছে। আর এই দূরত্ব হল সাবস্টেশনের ফিডার লাইনের দূরত্ব। এই রিলে মহাশয় সাবস্টেশন ফিডারের নির্দিষ্ট দূরত্ব অনুধাবন করেই তার প্রতিক্রিয়া প্রদর্শন করে।

Distance Protection রিলে
Distance Protection রিলে

আর রিলেটির প্রতিক্রিয়ার সময় নির্ভর করে ভোল্টেজ এবং কারেন্টে, ইম্পিড্যান্সের রেশিওর উপর। আর রিলে এবং ফল্ট পয়েন্টের ইম্পিড্যান্স নির্ভর করে তাদের মধ্যবর্তী দূরত্বের উপর। আর এই Distance Relay প্রধানত দুই ধরনের। যথাঃ

  • ইম্পিড্যান্স রিলে
  • রিয়েক্টেন্স রিলে

Distance Protection রিলের কার্যনীতি

  • Distance Protection রিলে প্রতিটি টাইপের কার্যনীতি ভিন্ন ভিন্ন।
  • কারণ এর কার্যনীতি শুধুমাত্র ভোল্টেজ/কারেন্টের ম্যাগনিচুড ভ্যালুর উপর নির্ভর করেনা। নির্ভর করে ভোল্টেজ এবং কারেন্টের রেশিওর উপর।
  • এটি এক ধরনের ডাবল একচুয়েটিং রিলে যার একটি কয়েল ভোল্টেজ কর্তৃক এনার্জাইজড হয় এবং অন্য কয়েলটি কারেন্ট কর্তৃক এনার্জাইজড হয়ে থাকে।
  • কারেন্ট ইলিমেন্ট এক্ষেত্রে পজিটিভ/পিক আপ টর্কের সৃষ্টি করতে পারে এবং ভোল্টেজ ইলিমেন্ট নেগেটিভ বা রিসেট টর্কের সৃষ্টি করে।
  • এই রিলেটি তখনই কার্যকর হবে যখন ভোল্টেজ এবং কারেন্ট রেশিও একটি সেট ভ্যালুর নীচে নেমে যাবে।
  • পাওয়ার সিস্টেমে যখন ফল্ট দেখা দেয় তখন কারেন্ট বৃদ্ধি পায় এবং ফল্ট পয়েন্টে ভোল্টেজ হ্রাস পায়।
  • ঐ মুহুর্তে কারেন্ট এবং পটেনশিয়াল ট্রান্সফরমার দিয়ে ভোল্টেজ এবং কারেন্ট রেশিও পরিমাপ করা হয়।
  • পটেনশিয়াল ট্রান্সফরমারে ভোল্টেজের পরিমাণ পটেনশিয়াল ট্রান্সফরমার এবং ফল্ট পয়েন্টের দূরত্বের উপর নির্ভর করে।
  • যদি ফল্ট পয়েন্ট খুব দূরে হয় তাহলে ভোল্টেজ বেশি হবে এবং পয়েন্ট যদি খুব কাছে থাকে তাহলে পটেনশিয়াল ট্রান্সফরমারের ভোল্টেজ ড্রপ হবে খুব কম।
  • এভাবে ফল্ট ইম্পিড্যান্স এবং ভোল্টেজ কারেন্টের রেশিও হিসেব করে ফিডার পয়েন্ট থেকে কত দূরে ফল্ট হল তা সহজেই বোঝা যায়।
Distance Protection রিলে কার্যনীতি
Distance Protection রিলে কার্যনীতি

ট্রান্সমিশন লাইনের ফল্ট নির্ধারণের জন্য এই ধরনের রিলে ব্যবহার করা হয়। এই ধরনের রিলে হাই স্পিড সুইচিং এবং খুব অল্প ফল্ট ক্লিয়ারিং টাইম মেন্টেইন করতে পারে।

ফল্ট ক্লিয়ারিং টাইম কি?

সার্কিট ব্রেকার বা যেকোন প্রটেক্টিভ সিস্টেমে ফল্ট হবার পর তা সেন্সিং করা, রিলে কার্যকর হওয়া এবং আর্কিং অবদমন করতে মোট যে সময় অতিবাহিত হবে তাকেই বলা হচ্ছে ফল্ট ক্লিয়ারিং টাইম। মানে আমার ফল্ট ক্লিয়ার বা দূরীভূত হতে যতটুকু সময় প্রয়োজন।

ট্রান্সমিশন লাইনে ফেজ ফল্ট এবং গ্রাউন্ড ফল্ট উভয়ের জন্যই এই রিলে ব্যবহার করা যায়। পূর্বে এই কাজে ওভারকারেন্ট রিলে ব্যবহার করা হত। কিন্তু এটির ফল্ট ক্লিয়ারিং টাইম Distance Relay এর তুলনায় অনেক বেশি। তাই জেনারেশন, ট্রান্সমিশন সিস্টেমে শর্ট সার্কিট কারেন্ট দেখা দিলে এই রিলে অতন্দ্র প্রহরীর ন্যায় কাজ করে।

Distance Protection রিলের সুবিধাগুলো লিস্টাকারে উল্লেখ করা হল:

  • এই রিলেটির সেটিংস পারমানেন্ট। রি-এডযাস্ট করতে হয়না।
  • এটার ফল্ট ক্লিয়ারিং টাইম, ওভারকারেন্ট রিলে মহাশয় থেকে অনেক কম।
  • এটি ফেজ এবং গ্রাউন্ড ফল্ট কন্ডিশনে খুব অল্প সময়েই সুইচ করে সিস্টেমকে সুরক্ষিত রাখে।
  • এটি ইম্পিড্যান্স এবং ভোল্টেজ কারেন্ট রেশিও অনুধাবন করে সহজেই ফিডার পয়েন্ট থেকে ফল্টের দূরত্ব নির্ধারণে সাহায্য করে।

রিলে নিয়ে কিছু পোস্ট

বুখলস রিলে/Buchholz Relay মামার কর্মতৎপরতা

সলিড স্টেট রিলে | Solid State Relay

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here