ইলেকট্রিক্যাল আইসোলেটর | Electrical Isolator

1
955
আইসোলেটর

Isolate শব্দের বাংলা অর্থ বিচ্ছিন্ন। আইসোলেটর হচ্ছে একটি ম্যানুয়াল মেকানিক্যাল সুইচ যা বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতির কোন একটি অংশকে প্রয়োজন অনুযায়ী সিস্টেম থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়।

ইলেকট্রিক সুইচগিয়ার সম্বন্ধে বিস্তারিত পড়ুন

আইসোলেটর সাধারণত নো-লোড কন্ডিশনে বা অফলাইনে অপারেটিং করা হয়ে থাকে। এতে আর্ক নির্বাপনের বিশেষ কোন ব্যবস্থা থাকে না। বৈদ্যুতিক সাব-ষ্টেশনে বিভিন্ন যন্ত্রপাতি যেমনঃ ট্রান্সফরমারকে নো-লোড বা সামান্য লোড অবস্থায় লাইন হতে বিচ্ছিন্ন করার জন্য Isolator ব্যবহার করা হয়।

আইসোলেটর ও সার্কিট ব্রেকারের মধ্যে পার্থক্য

আইসোলেটর ও সার্কিট ব্রেকার উভয়ই মূলত সুইচ যা পাওয়ার সিস্টেম থেকে সার্কিটের একটি অংশকে বিচ্ছিন্ন  করে দেয়।

Isolator হলো অফ লোড ডিভাইস যেখানে সার্কিট ব্রেকার অন লোড ডিভাইস। অর্থাৎ লোড থাকা অবস্থায় আইসোলেটর অপারেট করা যায় না যেখানে সিস্টেমে ত্রুটি হলে সার্কিট ব্রেকার স্বয়ংক্রিয়ভাবে অপারেট করে।সুতারাং আইসোলেটর সেখানেই অপারেট করা যাবে যেখানে লোড থেকে সার্কিট ডিসকানেক্ট থাকে। Isolator আর্ক নির্বাপনের কোন ব্যবস্থা থাকে না।

একটি প্রশ্ন হয়তো অনেকের মাথাই ঘুরছে 🙂 ??? 

লোড থাকা অবস্থায় আইসোলেটর অপারেট করা যায় না অর্থাৎ অফলোডে অপারেট করতে হয়, তাহলে আইসোলেটর কেন ব্যবহার করা হয়?? 

আমরা জানি, সার্কিট ব্রেকার যেকোন অবস্থায় (নো-লোড অবস্থায়, ফুল লোড অবস্থায় ও ত্রুটিপূর্ণ অবস্থায়) লাইনকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিচ্ছিন্ন করে দেয়। কিন্তু সার্কিট ব্রেকার যে ট্রিপ করেছে বা লাইনকে বিচ্ছিন্ন করেছে তা আমরা সরাসরি দেখতে পারি না। একারনে ট্রিপ করার পর বা লাইন বিচ্ছিন্ন থাকা অবস্থায় সার্কিটের কোন অংশে স্পর্শ করতে না বলা হয়ে থাকে।

ভালো নিরাপত্তার জন্য খুব ভালো এরেঞ্জেমেন্ট প্রয়োজন পরে যাতে করে সার্কিটের কোন অংশে স্পর্শ করার আগে ওপেন অবস্থায় দেখে স্পর্শ করে। 

আইসোলেটরের ব্যবহার

মেইন লাইনের সাথে সংযুক্ত যন্ত্রপাতি মেরামতের জন্য যন্ত্রপাতিকে মেইন লাইন হতে বিচ্ছিন্ন করার ক্ষেত্রে ট্রান্সমিশন লাইনের চার্জিং কারেন্টকে বন্ধ করার জন্য Isolator ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

আইসোলেটর প্রকারভেদ

সিস্টেমের চাহিদার উপর ভিত্তি করে Isolator বিভিন্ন রকমের হয়ে থাকে

  1. Double Break Isolator
  2. Single Break Isolator
  3. Pantograph type Isolator

পাওয়ার সিস্টেমের অবস্থান অনুযায়ি আইসোলেটরকে নিম্মলিখিত ভাগে ভাগ করা যায়

  1. Bus Side Isolator: যেটা মেইন বাসের সাথে সরাসরি সংযুক্ত থাকে
  2. Line Side Isolator: লাইন সাইড যেকোন ফিডারের সাথে এটি অবস্থান করে।
  3. Transfer Bus Side Isolator: এই Isolator ট্রান্সফার বাসের সাথে সরাসরি সংযুক্ত থাকে।

সার্কিটের আইসোলেটর খোলা (Open) ও বন্ধ (Closed) করার নিয়ম

খোলার ক্ষেত্রেঃ

  • প্রথমে সার্কিট ব্রেকার ওপেন করতে হবে
  • Isolator ওপেন করতে হবে
  • আর্থিং সুইচ বন্ধ করতে হবে।

বন্ধ করার ক্ষেত্রেঃ

  • প্রথমে আর্থিং সুইচ ওপেন করতে হবে।
  • Isolator বন্ধ করতে হবে।
  • সার্কিট ব্রেকার বন্ধ করতে হবে।

সার্কিট ব্রেকারের উভয় পার্শ্বে সার্কিট ব্রেকার যেকারনে লাগানো হয়

আইসোলেটর

যখন কোন লো ভোল্টেজ লাইনে অথবা বাসাবাড়ির ইলেকট্রিক কার্য মেরামত বা মেইনটেন্যান্স করা হয় তখন ইলেকট্রিশিয়ান মেইন সুইচ অফ করে দিয়ে সুইচ এর ফিউজ ব্রিজ খুলে রেখে কাজ করার ক্ষেত্রে নিশ্চয়তা বোধ করে এবং এটাই নিয়ম। কারন ভুলবশত কেও মেইন সুইচ অন করে দিলে লাইন অপারেটরের দূর্ঘটনা ঘটবে।

ঠিক তেমনি হাই টেনশন(H.T) লাইনের ফল্ট ঠিক করার সময় সার্কিট ব্রেকার অপারেট করানোর পরেও Isolator দ্বারা লাইনকে সম্পূর্ণভাবে বিচ্ছিন্ন করা হয়। অধিকাংশ সার্কিট ব্রেকার রিমোট কন্ট্রোল হয়ে থাকে ফলে ভুলক্রমে কেও লাইন অন করতেই পারে।

সার্কিট ব্রেকারের উভয় পার্শ্বে Isolator লাগানো থাকলে সহজে Isolator খুলে সার্কিট ব্রেকারকে মেরামত করার জন্য বাহিরে আনা যায়। কাজেই ইলেকট্রিশিয়ানদের অধিক নিরাপত্তার জন্য সিস্টেমে সার্কিট ব্রেকার লাগানো সত্ত্বেও Isolator লাগানো হয়।

ইন্সট্রুমেন্ট ট্রান্সফরমার সম্বন্ধে বিস্তারিত পড়ুন

1 COMMENT

LEAVE A REPLY