ইনভার্টার সম্বন্ধে বিস্তারিত আলোচনা ও কিছু কথা | Inverter

6
Inverter

Inverter বিষয়ে নিয়ে লেখার জন্য আমাদের কাছে অনেক বন্ধু অনুরোধ করেছেন। বর্তমান সময়ে ইনভার্টার  একটি বহুল প্রচলিত ডিভাইস যা যে কোন ধরনের মেশিন এ ইন্ডাকশন মোটর স্পীড কন্ট্রোল করতে কাজে লাগে।

আজ আমরা ইনভার্টার  বিষয়ে কিছু তথ্য আপনাদের সামনে উপস্থিত করতে যাচ্ছি। আশা করছি ভালো কিছু নতুন তথ্য তুলে ধরতে পারবো। তাহলে চলুন দেখি কি কি বিষয় থাকছে আজকের লেখাতে।

  1. ইনভার্টার কি বা কাকে বলে?
  2. ইনভার্টার কত প্রকার ও কি কি?
  3. ইনভার্টার সংক্ষিপ্ত কার্যপ্রনালী।
  4. ইনভার্টার সার্কিটের আউটপুট।
  5. ইনভার্টার ব্যাটারি
  6. ইনভার্টার কোথায় কোথায় ব্যবহার করা হয়?
  7. ইনভার্টার বিভিন্ন ব্র্যান্ড

Inverter কি বা কাকে বলে?

ইভার্টার এমন এক ধরনের ইলেকট্রনিক্স ডিভাইস যা ডাইরেক্ট কারেন্ট(ডিসি) কে অল্টারনেটিং কারেন্টে(এসি) তে রূপান্তরিত করে। ইনভার্টার ব্যবহিত হয় ডিসি সোর্স থেকে এসি পাওয়ার সাপ্লাই দেবার জন্য যেমন সোলার প্যানেল বা বৈদ্যুতিক ব্যাটারী।

ইলেকট্রিক্যাল ইনভার্টার মূলত উচ্চ ক্ষমতার ইলেকট্রনিক অসিলেটর। ইনভার্টার  সাধারণত রেক্টিফায়ারের বিপরীতে কাজ সম্পাদন করে থাকে। ইনভার্টার  সাধারণত ফ্রিকুয়েন্সি এবং ভোল্টেজ কে পরিবর্তন করতে পারে।

ইনভার্টার কত প্রকার ও কি কি?

ইনভার্টারের নিম্মলিখিত আউটপুট পাওয়া যায়।

Inverter

  • স্কোয়ার ওয়েব ইনভার্টার
  • মডিফায়াইড সাইন ওয়েব ইনভার্টার
  • পিউর সাইন ওয়েব ইনভার্টার

Inverter সংক্ষিপ্ত কার্যপ্রনালী

পরবর্তী লেখাতে inverter সার্কিট কিভাবে তৈরি করবেন এবং কিভাবে ইনভার্টার সার্কিট কাজ করে থাকে তা আলোচনা করা হবে

ইনভার্টার সার্কিটের আউটপুট

Inverter সাধারণত স্কোয়ার ওয়েব, মডিফিটেড সাইন ওয়েব, পালস সাইন ওয়েব, পালস ওয়াইডথ মডুলেশন তৈরি করতে পারে।

  • স্কোয়ার ওয়েবঃ এটা অনেক সহজতম ওয়েবফর্ম যা ইনভার্টার তৈরি করতে পারে। এটা কম সংবেদনশীলতা এপ্লিকেশনের জন্য উপযুক্ত যেমন লাইটনিং এবং হিটিং। স্কোয়ার ওয়েব আউটপুট ফর্ম যখন অডিও যন্ত্রপাতির সাথে সংযুক্ত করা হয় তখন তা গুন গুন শব্দ করে থাকে এবং যেটা সত্যি অনুপুযুক্ত সংবেদনশীল ইলেকট্রনিক্স এর জন্য।
  • সাইন ওয়েবঃ ইনভার্টার সার্কিট মূলত সাইন ওয়েব ও তৈরি করতে পারে। সাইন ওয়েব আউটপুট টাইপের ইনভার্টার তৈরি করতে অনেক খরচ হয়ে থাকে।
  • আউটপুট ফ্রিকুয়েন্সিঃ ইনভার্টারারের আউটপুট ফ্রিকুয়েন্সি সাধারণ এসি সাপ্লাই ফ্রিকুয়েন্সির মতই ৫০ অথবা ৬০ হার্টজ।
  • আউটপুট ভোল্টেজঃ এর আউটপুট ভোল্টেজ মূলত অনেকটাই গ্রীড লাইন ভোল্টেজের মতই হয়ে থাকে। যেমনঃ ১২০ অথবা ২৪০ VAC ডিস্ট্রিবিউশন লেভেল।

ইনভার্টার ব্যাটারি

ইনভার্টার কত সময় চলবে তা নির্ভর করবে ব্যাটারি পাওয়ারের উপর। যত বেশি পরিমান ইনভার্টার ইকুইপমেন্ট ব্যবহার করা হবে ব্যাটারি পাওয়ার তত তারাতারি কমে যাবে। প্রয়োজনে বেশি ব্যাটারি যুক্ত করা যেতে পারে।

ইনভার্টার কোথায় কোথায় ব্যবহার করা হয়?

Inverter
Inverter

Inverter মূলত অনেক কাজে ব্যবহার করা হয়। এর মধ্যে আমাদের দেশে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মোটর কন্ট্রোলিং এর কাজে Inverter ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

একটি উদাহরন দিলে বুঝতে পারবেন আশা করছি। আমাদের দেশে পাওয়ার সাপ্লাই ৫০ হার্টজ এ মোটরের স্পীড ও ফিক্সড থাকে বলা যায়। সুতারাং মোটর ৫০ হার্টজ এ ফিক্সড স্পীডে ঘুরবে।

এখন যদি আমরা মোটরের স্পীড কমাতে বা বাড়াতে চায় তাহলে আমাদের Inverter প্রয়োজন পড়বে।

ডিসি পাওয়ার সোর্স হিসেবে ব্যবহারঃ ইনভার্টার মূলত ডিসি পাওয়ার(ব্যাটারি সোর্স, জ্বালানি কোষ, সোলার প্যানেল ) ইত্যাদি থেকে এসি ইলেক্ট্রিসিটিতে রুপান্তর করতে পারে।

ইউপিএস পাওয়ার সাপ্লাইয়ের জন্যঃ আন ইন্টারাপ্টেড পাওয়ার সাপ্লাই এ ব্যাটারি ব্যবহার করা হয় পাওয়ার স্টোরেজ এর জন্য এবং ইনভার্টার এর মাধ্যমে তা এসি পাওয়ার প্রেরন করে থাকে যখন প্রধান পাওয়ার(ইলেক্টিসিটি) থাকে না।

যখন মেইন পাওয়ার চলে আসে তখন রেক্টিফায়ার ব্যাটারিতে ডিসি পাওয়ার সাপ্লাই করে থাকে ব্যাটারি রিচার্জ করার জন্য।

ইলেকট্রিক মোটর স্পীড কন্ট্রোলঃ  ইনভার্টার বা ভিএফডি বা ড্রাইভ মূলত ব্যাবহার করা হয় লোডের স্পিড বা গতিকে কন্ট্রোল করার জন্য। ধরুন আপনার একটি কনভেয়ার বেল্ট আছে। যাকে আপনার মাঝে মাঝে 10 minute এ ঘুরাতে হবে।আবার মাঝে মাঝে 5 minute ঘুরাতে হবে।

তাহলে আপনি এই বেল্টের স্পিড কিভাবে কন্ট্রোল করবেন? অবশ্যই ঘুরানোর জন্য যে মোটর আছে তার স্পিড কন্ট্রোল করবেন। আর এর স্পিড কন্ট্রোল করার জন্য আপনাকে Inverter / ভিএফডি / ড্রাইভ ব্যাবহার করতে হবে। ইনভার্টার / ভিএফডি/ ড্রাইভ দিয়ে মোটরের লোড নেওয়ার ক্ষমতাকে কমবেশী করা যায়।

ধরুন আপনার মোটরটি সর্বোচ্চ Weight 10kg উঠাতে পারবে। এখন আপনার প্রয়োজন ৫ কেজির বেশী হলে আপনার ওই মোটর ওভার লোড হয়ে বন্ধ হয়ে যাবে।এটা কিভাবে করবেন? Its simple, ইনভার্টার থেকে Program করে টর্ক ক্যাপাসিটি কমিয়ে দিন।

ইনভার্টার ব্যাবহার করার ফলে আপনি আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী আপনার মোটরকে বা লোডকে যখন খুশি বা যেভাবে খুশি নিয়ন্ত্রন করতে পারছেন।যার ফলে আপনার বিদ্যুৎ ও সাশ্রয় হচ্ছে।

এছাড়া ও বৈদ্যুতিক যানবাহনের ড্রাইভ, এয়ার কন্ডিশনারে, এইচভিডিসি পাওয়ার সরবরাহ, চলক ফ্রিকুয়েন্সী ড্রাইভ,  আবেশী তাপ প্রয়োগ ইত্যাদি ক্ষেত্রে ইনভার্টার এর ব্যাপক ব্যবহার দেখা যায়।

ইনভার্টার বিভিন্ন ব্র্যান্ড

আমাদের দেশে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ইনভার্টার রয়েছে। এর মধ্যে সিমেন্স, টেলিমেকানিক, এবিবি ইত্যাদি। কিছু সহজ সরল মেশিনারিজে যে কোন ব্র্যান্ডের ইনভার্টার ব্যবহার করা যায়। তবে এসব  ক্ষেত্রে Inverter লাইফ টাইম বিবেচনা করা হয়।

6 COMMENTS

  1. thanks……amr inverter somporkke kicu janar chilo ai post er maje ami khub valovhabe janteparlm….

  2. ভাইয়া আমার ইনভাটার এবং পি,এল,সি, সার্ভিসিং শেখা খুব প্রয়োজন, প্লিজ ভাইয়া আমাকে হেল্প করুন,কিভাবে শিখব,

    • ইনভার্টার, পি এল সি ও কন্ট্রোলিং নিয়ে আমরা পর্ব ভিত্তিক লেখা পোস্ট করছি। অনুগ্রহ করে আমাদের সাথেই থাকুন। আমরা চেষ্টা করবো ব্যবহারিক বিষয়গুলো লিখে উপস্থাপন করতে। প্রতিনিয়ত ভোল্টেজ ল্যাবের পেজে চোখ রাখুন।

  3. Knitting machine inverter ?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here