ইন্ডাস্ট্রি এবং বাসা-বাড়িতে ব্যবহৃত বিভিন্ন প্রকার প্লাগের পরিচিতি

0
313

অনেক আগে আমার এক ছাত্রের বাড়িতে দাওয়াত খেতে গিয়েছিলাম। যথাসময়ে আমি সেখানে উপস্থিত হলাম। গিয়ে দেখি সেখানে আমার আরো কয়েকজন ছাত্র উপস্থিত। ডিনারের সময় হতে এখনো অনেক সময় বাকি। তাই আমার ছাত্র সময় কাটানোর জন্য ঠান্ডা সেভেন আপ নিয়ে এলো। আমি এবং আমার ছাত্ররা সেভেন আপ খেতে লাগলাম। আমার ছাত্ররা খুবই বিদ্যানুরাগী। ফ্রি সময়ে আমার কাছে নতুন কিছু জানার আগ্রহ প্রকাশ করল। আমি ভাবলাম তাদের সাথে প্লাগের পরিচিতি নিয়ে গল্প করব। আজ ভাবলাম সেই গল্প আপনাদের সাথে শেয়ার করব। চলুন শুরু করা যাক।

ইন্ডাস্ট্রি এবং বাসা-বাড়িতে ব্যবহৃত বিভিন্ন প্রকার প্লাগের পরিচিতি

প্লাগ খুব প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম যা পাওয়ার লাইনের সাথে লোডের ইলেকট্রিক্যাল কন্ট্যান্ট তৈরি করতে সাহায্য করে। প্লাগ অনেক ধরনের হতে পারে। দুই পিন অথবা তিন পিন বিশিষ্ট। আজ বিভিন্ন টাইপের প্লাগের সাথে আমরা পরিচিত হব।

Type A প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত আমেরিকা, কানাডা, মেক্সিকো এবং জাপানে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ দুই পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকেনা।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ১০০ থেকে ১২৭ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৫ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type A প্লাগের পরিচিতি
Type A প্লাগ

Type B প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত আমেরিকা, কানাডা, মেক্সিকোতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ তিন পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ১০০ থেকে ১২৭ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৫ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type B প্লাগের পরিচিতি
Type B প্লাগ

Type C প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ইউরোপ, দক্ষিণ আমেরিকা, এশিয়ায় ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ দুই পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকেনা।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ৩, ১০ এবং ১৬ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type C প্লাগের পরিচিতি
Type C প্লাগ

Type D প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ভারতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ তিন পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ৫ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type D প্লাগের পরিচিতি
Type D প্লাগ

Type E প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ফ্রান্স, বেলজিয়াম, পোল্যান্ড, স্লোভাকিয়ায় ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ দুই পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৬ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type E প্লাগ
Type E প্লাগ

Type F প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ইংল্যান্ড এবং আয়ারল্যান্ড ব্যতীত ইউরোপের সব দেশেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ দুই পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৬ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type F প্লাগ
Type F প্লাগ

Type G প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ইংল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, মাল্টা, মালয়েশিয়া এবং আরব দেশগুলোতে ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ তিন পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৩ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type G প্লাগ
Type G প্লাগ

Type H প্লাগ

  • এই ধরনের প্লাগ সাধারণত ইসরায়েল এবং ফিলিস্তিনের গাজায় ব্যবহৃত হয়ে থাকে।
  • এই টাইপের প্লাগ তিন পিন বিশিষ্ট হয়ে থাকে।
  • এতে আলাদাভাবে গ্রাউন্ডিং পিন থাকে।
  • এটির ভোল্টেজ রেটিং ২২০ থেকে ২৪০ ভোল্ট পর্যন্ত হতে পারে।
  • এটি সর্বোচ্চ ১৬ এম্পিয়ার পর্যন্ত নিতে পারে।
Type H প্লাগ
Type H প্লাগ

আরো কিছু আর্টিকেল

হাউজ ওয়্যারিং বা বাসা বাড়ির বিদ্যুৎ ওয়্যারিং নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা

আর্থিং সিস্টেম বিদ্যুৎ বিলের উপর কিরুপ প্রভাব ফেলবে?

আর্থিং ও নিউট্রাল বিষয়ে খুঁটিনাটি ও সহজ ভাষায় আলোচনা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here