ইলেকট্রন এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ বিপরীত কেন?

ভোল্টেজ, কারেন্ট এই দুই ভাইকে নিয়ে যতই গবেষণা করা হোক না কেন জনমনে এদের নিয়ে কৌতূহল এর যেন শেষ নেই। একটি প্রশ্ন অনেকের মনকে বিচলিত করে তুলে যেটা হল ইলেকট্রন ও বিদ্যুৎ প্রবাহ বিপরীত কেন? সাধারণভাবে চিন্তা করলে ত তাদের দিক এক থাকার কথা অর্থাৎ ইলেকট্রন যেদিকে ভ্রমণ করছে, বিদ্যুৎ ও সেদিকে ভ্রমণ করার কথা।

আসলে মূল ব্যাপারটি কি? চলুন আলোচনা করা যাক।

আপনি যখন পাকা আম পাড়ার জন্য গাছে ঢিল মারেন তখন ঢিলটি গিয়ে পাকা আমে আঘাত করে এবং পাকা আমটি মাটিতে পড়ে। এই ঢিল নিশ্চয় কোন একটি শক্তি অর্জন করেছে যার মাধ্যমে এটি আমটিকে গাছ থেকে মাটিতে ফেলতে পেরেছে। এখন আমরা পরিবাহী থেকে ইলেকট্রন বিচ্যুত হয়ে প্রবাহিত হওয়ার ঘটনাটি আম পড়ার সাথে তুলনা করতে পারি।

তাহলে এই ক্ষেত্রে ঢিলটি কে?

এই ক্ষেত্রে ঢিলটি হল ভোল্টেজ যা পরিবাহী থেকে ইলেকট্রনকে বিচ্যুত করে। মূলত পরিবাহীর দুই প্রান্তে ভোল্টেজ পার্থক্যের জন্যই বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয়। আর এই প্রবাহ ঘটে উচ্চ ভোল্টেজ থেকে নিম্ন ভোল্টেজের দিকে। এই ব্যাপারটিকে আবার একটি সুন্দর উপমার সাহায্যে ব্যাখ্যা করা যায়। মনে করুন, দুটো ট্যাংকে পানি আছে। প্রথম ট্যাংকটি পানি দ্বারা পূর্ণ আর অপরটি অর্ধেক পূর্ণ। তাদের মধ্যে একটি পাইপ সংযুক্ত করলে পানি নিশ্চয়ই ১ম ট্যাংক থেকে ২য় ট্যাংকে প্রবাহিত হবে।

বিদ্যুৎ প্রবাহ; পানির ট্যাংকের সাথে ভোল্টেজ লেবেলের সামঞ্জস্যতা
পানির ট্যাংকের সাথে ভোল্টেজ লেবেলের সামঞ্জস্যতা

বিদ্যুৎ উচ্চ ভোল্টেজ থেকে নিম্ন ভোল্টেজ এর দিকে প্রবাহিত হচ্ছে বুঝলাম কিন্তু ইলেকট্রন কেন উল্টো দিকে যাবে?

বহুকাল আগে ধারণা ছিল বিদ্যুৎ হল পজিটিভ চার্জের প্রবাহ। আর পজিটিভ চার্জবিশিষ্ট প্রান্তকে উচ্চ ভোল্টেজ এবং নেগেটিভ চার্জ বিশিষ্ট প্রান্ত নিম্ন ভোল্টেজ ধরা হত। সেই হিসেবে বলা হত বিদ্যুৎ তথা পজিটিভ চার্জের প্রবাহ পজিটিভ (উচ্চ ভোল্টেজ) থেকে নেগেটিভ (নিম্ন ভোল্টেজ) এর দিকে প্রবাহিত হয়। কিন্তু পরে যখন আবিষ্কৃত হল বিদ্যুৎ প্রবাহ হল ইলেকট্রন এর প্রবাহ আর এই ইলেকট্রনের প্রবাহ হয় সোর্সের নেগেটিভ প্রান্ত থেকে পজিটিভ প্রান্তে তখন ই বেধে যায় মতামতে সংঘর্ষ। ইতোমধ্যে অনেকেই মানা শুরু করে দিয়েছে বিদ্যুৎ প্রবাহ পজিটিভ থেকে নেগেটিভ প্রান্তে যায়। এরপর এই মতবাদ আর পরিবর্তিত হয়নি। দুটো মতবাদকেই সমন্বয় করে এই মতবাদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যে বিদ্যুৎ প্রবাহ ও ইলেকট্রন এর প্রবাহ বিপরীত। এরপরেও যাদের সংশয় থাকবে তারা ব্যাপারটিকে দুইটি বাস্তব ঘটনার সাথে কল্পনা করতে পারেন।

ঘটনা ১

লেকের মধ্যে মাছ সাঁতার কাটছে। মাছ যেদিকে যাচ্ছে লেকের স্রোত তার বিপরীতে যাচ্ছে।

এখানে মাছকে ইলেকট্রন এবং লেকের স্রোতকে বিদ্যুৎ প্রবাহ হিসেবে কল্পনা করতে পারেন।

বিদ্যুৎ প্রবাহ; লেকের মাছ ও বিদ্যুৎ প্রবাহের সামঞ্জস্যতা
লেকের মাছ ও বিদ্যুৎ প্রবাহের সামঞ্জস্যতা
ঘটনা ২

একটি সেমিনারের আয়োজন করা হল যেখানে একজন জ্ঞানী ব্যক্তি ভাষণ দিবেন। সেমিনারে উপস্থিত সবাই তাকে প্রশ্ন করতে পারবেন। জ্ঞানী লোকটি যেহেতু বেশি জানেন তাই তাকে উচ্চ ভোল্টেজ এবং উপস্থিত মানুষদের লোকটির সাপেক্ষে নিম্ন ভোল্টেজ ধরা হল। এখন জ্ঞানী লোকটি তার জ্ঞান সেমিনারের সবার মাঝে ছড়িয়ে দিচ্ছেন এটিকে বিদ্যুৎ প্রবাহ এবং সেমিনারের উপস্থিত লোকেরা উনাকে প্রশ্ন করছেন এটিকে ইলেকট্রন প্রবাহ হিসেবে কল্পনা করতে পারেন।

বিদ্যুৎ প্রবাহ; সেমিনার রুম এবং বিদ্যুৎ প্রবাহের সামঞ্জস্যতা
সেমিনার রুম এবং বিদ্যুৎ প্রবাহের সামঞ্জস্যতা

বিদ্যুৎ নিয়ে অন্যান্য পোস্ট

বিদ্যুৎ নিয়ে কিছু মজার এবং গুরুত্বপূর্ণ তথ্য যা আপনার জেনে রাখা উচিত

কারেন্ট সম্বন্ধে সহজ ভাষায় বিস্তারিত আলোচনা । Current

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here