Troubleshooting কি? কিভাবে এর এক্সপার্ট হওয়া যাবে???

ট্রাবলশুটিং

Troubleshooting কি? কিভাবে এর এক্সপার্ট হব???

ধরুন, একজন ডাক্তারের কাছে রোগী আসল। তখন রোগী বলল, তার বুকের বাম পাশে ব্যথা করে। খুবই পীড়া দেয়। তখন ডাক্তার চিন্তা করে বুকের বাম পাশে কি থাকে? তো তিনি বুঝে যান যে কার্ডিয়াক প্রব্লেম। তখন ঐ অনুযায়ী টেস্ট করাতে বলেন। অর্থাৎ, ডাক্তার যদি এই তথ্যটা না জানত সে সমাধান দিত পারত না। লব্ধ জ্ঞানকে প্রয়োগ করে সমস্যা চিহ্নিত করাটাই হল ট্রাবলশুটিং।

তেমনিভাবে একজন ইঞ্জিনিয়ার ও মেশিনের ডাক্তার। তাকে মেশিনের নাড়িনক্ষত্র জানতে হবে। তাইলেই সে ট্রাবলশুট করতে পারবে।

ধরেন, হঠাৎ আপনার কোম্পানিতে MPCB, OL relay ট্রিপ করল আর উচ্চ শব্দে মোটর বন্ধ হয়ে গেল। এখন ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে আপনার ডাক পড়ল। অপারেটর আপনাকে বিস্তারিত বলল। এখন আপনার কাজ কি?

এই মুহূর্তে আপনার থিওরি কাজে লাগবে। কখন কোন অবস্থায় মোটরের এই অবস্থা হয়।

  • ফেইজ failure হলে।
  • ওভারলোড হলে।
  • বিয়ারিং জ্যাম হয়ে গেলে। যার কারণে হাই টর্ক সৃষ্টি করতে প্রচুর কারেন্ট টানতে গিয়ে এই অবস্থা হয়।
  • Winding Coil এ Inter turn short হলে।

তখন আপনি ইলেক্ট্রিশিয়ান ভাইকে বলবেন মোটরের সিরিজ ল্যাম্প টেস্ট করতে বা মাল্টিমিটার দিয়ে চেক আপ করতে যে আপনার মোটর জীবিত আছে কিনা। রিউইন্ডিং করাতে বলবেন। রানিং লোড কত এসব বিস্তারিত জানতে চাইবেন। তারপর এক সময় রোগ ধরা পড়বেই।

আর এক্সপার্টনেস একদিনে আসবেনা। কাজ করতে করতে ভুল করতে করতে মেশিন নষ্ট করতে করতে এক সময় আপনি মেশিন ধরেই বলে দিতে পারবেন যে এটার কি সমস্যা। এভাবেই একজন সফল প্রকৌশলী হতে পারা যায়।

Courtesy: Iqbal Mahmood

বিঃদ্রঃ বুঝার সুবিধার্থে লেখক Informal ভাষা ব্যবহার করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here