হাউজ ওয়্যারিং করার পদ্ধতি | House Wiring Bangla -4

হাউজ ওয়ারিং

আমরা এখন ওপেন ওয়্যারিং সম্পর্কে জানব। কারণ ঘর বাড়িতে চ্যানেল ওয়্যারিং করা নিরাপদ এবং সহজ। একটি ঘর ওয়্যারিং করার জন্য প্রথমেই জানতে হবে ঐ ঘরে কয়টি পয়েন্ট হবে। ঘরের যেসব জায়গায় লাইট, ফ্যান, টেলিভিশন, ইত্যাদির সংযােগ দেওয়া হয় তাকে একেকটি পয়েন্ট বলে।

House Wiring Bangla – 1 । হাউজ ওয়ারিং কি ও বিভিন্ন টুলস সম্পর্কে আলোচনা পড়ুন

House Wiring Bangla – 2 | হাউজ ওয়্যারিং শুরুর আগে যা জেনে রাখা জরুরী পড়ুন 

House Wiring Bangla – 3  | হাউজ ওয়্যারিং এর ধরণ এবং ধাপসমূহ

House wiring সম্বন্ধে বিস্তারিত পড়ুন

একটি ঘরে সাধারণত পাঁচটি পয়েন্ট থাকে। তবে প্রয়ােজন অনুযায়ী পয়েন্ট কম বা বেশি হতে পারে। ঘরের কোথায় লাইট, ফ্যান থাকবে আর কোথায় টিভির জন্য সকেট থাকবে তা বাড়ির মালিক ঠিক করে দেন। আর এই পয়েন্ট অনুযায়ী জিনিসপত্রের হিসাব দেন মিস্ত্রী। যেমন- কোন সাইজের কতটুকু তার লাগবে, চ্যানেল লাগবে, কয়টি সুইচ বাের্ড ও সুইচ লাগবে ইত্যাদি।

এখানে বলে নেওয়া ভালাে ১২ ফুট বাই ১৫ ফুট মাপের একটি ঘর ওয়্যারিং করার জন্য আনুমানিক ৪০ গজ তার লাগে। চ্যানেল লাগে ৭টি। সুইচ লাগে ৩/৪টি। সকেট লাগে ২টি, হোল্ডার লাগে ২টি এবং সিলিং রােজ লাগে ২টি।

যেভাবে পয়েন্ট ও জয়েন্ট বক্সের জায়গা তৈরি করতে হবে

একটি ঘরে কয়টি পয়েন্ট এবং জয়েন্ট বক্স থাকবে তা প্রথমেই ঠিক করে নিন । ধরা যাক একটি ঘরে পাঁচটি পয়েন্ট এবং একটি জয়েন্ট বক্স থাকবে। এক্ষেত্রে যেভাবে ওয়্যারিং করতে হবে, তা নিচে উল্লেখ করা হলঃ

দেয়ালের যেসব স্থান দিয়ে চ্যানেলের তার বিভিন্ন পয়েন্টে যাবে, সেসব স্থান প্রথমেই রঙিন চক বা পেন্সিলের সাহায্যে দাগ দিয়ে নিন। তারপর ঐ দাগের উপর চ্যানেল আটকানাের জন্য স্ক্রু পয়েন্ট পেন্সিল দিয়ে চিহ্ন দিন।

দেয়ালে চ্যানেল আটকানাের জন্য সাধারণত এক ফুট পর পর স্ক্রু লাগানাে হয়। এরপর ঐ দাগের উপর মেজারিং টেপ অথবা গজ ফিতা দিয়ে মেপে দেখুন। হিসাব করে দেখুন এক পয়েন্ট থেকে আরেক পয়েন্ট পর্যন্ত মােট কত ইঞি অথবা কত ফুট চ্যানেল লাগবে। চ্যানেলের নিচের অংশ হ্যাক-স ব্লেড দিয়ে মাপ মত কেটে নিন।

হাউজ ওয়ারিং

ড্রিল মেশিন, চ্যানেল রাওয়াল প্লাগ, স্ক্র ও ড্রাইভার আর একটি টুল হাতের কাছে রাখুন। কারণ হাউস ওয়্যারিং করার সময় এ সব জিনিস লাগবে। চ্যানেল ও জয়েন্ট বক্স সাধারণত ঘরের মেঝে থেকে দেয়ালের আট ফুট উপরে বসানাে হয়। আর সুইচ বাের্ড লাগানাে হয় ঘরের মেঝে থেকে দেয়ালের সাড়ে চার ফুট উপরে।

দেয়ালে যেভাবে চ্যানেল বসাতে হবেঃ

ঘর ওয়্যারিং করার জন্য দেয়ালে আগে চ্যানেল বসিয়ে নিতে হয়। তারপর এর ভিতর দিয়ে বৈদ্যুতিক তারের সংযােগ দিতে হয়। এখন আমরা জানব দেয়ালে কীভাবে চ্যানেল বসাতে হয়ঃ

হাউজ ওয়ারিং

হ্যান্ডড্রিল মেশিন নিন। মেশিনের মুখে ৬ মিলিমিটার মাপের ওয়াল বিট লাগান। তারপর পেন্সিল বা চক দিয়ে চিহ্ন করা পয়েন্টের উপর ড্রিল বিটের মুখ রাখুন।

হাউজ ওয়ারিং

তারপর মেশিনের হ্যান্ডেল ডান দিকে ঘুরিয়ে দেয়াল দেড় ইঞ্চি পরিমাণ ছিদ্র করুন। ঐ ছিদ্রের মধ্যে রাওয়াল প্লাগ ঢুকিয়ে দিন।

হাউজ ওয়ারিং

চ্যানেলের কভারটি খুলে নিন। এবার চ্যানেলের নিচের অংশটি দেয়ালে চিহ্নিত দাগের ঠিক নিচ বরাবর ধরুন। তারপর পেন্সিল বা স্ক্রু ড্রাইভারের মাথা দিয়ে চ্যানেলের উপর স্ক্রু পয়েন্ট বরাবর দাগ বা চিহ্ন দিন।

এবার চ্যানেলটি একটি কাঠের উপর রাখুন। তারপর চ্যানেলের ঠিক মাঝ বরাবর চিহ্নিত পয়েন্টে ড্রিল মেশিন দিয়ে ছিদ্র করুন। এরপর চ্যানেলটি দেয়ালের ছিদ্র বরাবর বসান। তারপর সােয়া এক ইঞ্চি মাপের স্ক্রু নিন। স্ক্রুগুলো চ্যানেলের ছিদ্র দিয়ে দেয়ালের ছিদ্র বরাবর ঢুকান। তারপর ক্র ড্রাইভার দিয়ে স্ক্রু গুলাে চ্যানেলের উপর ভালােভাবে এঁটে দিন। দেয়ালের সব জায়গায় এই নিয়মে চ্যানেলের নিচের অংশটি বসান।

হাউজ ওয়ারিং

ওয়্যারিং এর সময় কখনও কখনও চ্যানেলের ভিতর দিয়ে ২টি তার টানা হয়। দুটি তার টানলে সেখানে পৌনে এক ইঞ্চির চ্যানেল লাগবে। আবার কখনাে চ্যানেলের ভিতর দিয়ে ৪ থেকে ৫টি তার টানতে হয়। ৪/৫টি তার টানলে ১ ইঞ্চি চওড়া চ্যানেল লাগবে। আর ৪/৫ টির বেশি তার টানতে হলে সেখানে দেড় ইঞ্চির চ্যানেল লাগবে।

হাউজ ওয়ারিং

এবার মেইন সুইচ থেকে চ্যানেল বসানোর কাজ শুরু করুন।

জয়েন্ট বক্সঃ

মেইন সুইচ থেকে চ্যানেলটি লাগিয়ে জয়েন্ট বক্স পর্যন্ত জয়েন্ট বক্সের নিচের অংশ নিয়ে আসুন। এবার চার ইঞ্চি বাই চার ইঞ্চি মাপের একটি জয়েন্ট বক্স নিন। জয়েন্ট বক্সের দুটি স্ক্রু পয়েন্ট থাকে।

হাউজ ওয়ারিং

এই বক্সের উপরের ঢাকনাটি খুলে নিন। এরপর বক্সের নিচের অংশটি দেয়ালের উপর বসিয়ে দুটি স্ক্রু পয়েন্ট দেয়ালে চিহ্নিত করে নিন। এবার বক্সটির নিচের অংশ দেয়াল থেকে সরিয়ে নিন। তারপর ড্রিল মেশিন দিয়ে দেয়ালে চিহ্নিত জায়গায় ছিদ্র করে ফেলুন। এবার ছিদ্রগুলাের মধ্যে রাওয়াল প্লাগ ঢুকিয়ে এর উপর জয়েন্ট বক্স বসান। এরপর জয়েন্ট বক্সের ছিদ্র বরাবর ২টি স্ক্র ঢুকিয়ে দিন। তারপর স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে স্ক্রুগুলাে এঁটে দিন।

বাল্ব পয়েন্টঃ

হাউজ ওয়ারিং

জয়েন্ট বক্সের অন্যদিকে আরেকটি চ্যানেল বসিয়ে দেয়ালে বাল্বের পয়েন্ট পর্যন্ত নিয়ে আসুন। এই চ্যানেলের শেষ মাথায় ব্যাটেন হােলডার ধরুন। ব্যাটেন হােলডারের দুটি স্ক্রু পয়েন্ট থাকে। হােলডারের স্ক্রু পয়েন্ট দুটি দেয়ালে চিহ্নিত করে নিন। তারপর দেয়ালে চিহ্নিত জায়গায় ড্রিল মেশিন দিয়ে ড্রিল করুন।

সকেট পয়েন্টঃ

হাউজ ওয়ারিং

এবার জয়েন্ট বক্স থেকে সকেট পয়েন্ট পর্যন্ত প্রয়ােজনীয় চ্যানেল আগের নিয়মে বসান। এরপর সকেট পয়েন্টের সুইচ বাের্ডের নিচের অংশটি নিন। এবার জয়েন্ট বক্সের নিচের অংশের মত সুইচ বাের্ডের নিচের অংশ স্ক্রু দিয়ে দেয়ালে লাগান। এই সকেট পয়েন্ট থেকে সব বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি চালানাে যায়।

টিউব লাইটের পয়েন্ট

হাউজ ওয়ারিং

হাফ ইঞ্চি চ্যানেল নিন। চ্যানেলটি জয়েন্ট বক্সের বাম দিক থেকে টিউব লাইটের পয়েন্ট পর্যন্ত বসিয়ে ফেলুন। সিলিং রােজ বসানাের বক্সটি হাতে নিন। এবার দেয়ালে বসানাে চ্যানেলের ঠিক নিচের মুখে সিলিং রােজের বক্সটি বসান। তারপর সিলিং রােজ দেয়ালে বসানাের জন্য বক্সের স্ক্রু পয়েন্ট দেয়ালে চিহ্নিত করে নিন। এবার দেয়াল ড্রিল করে ফেলুন।

হাউজ ওয়ারিং

ড্রিল করার পর রড লাইট বা টিউব লাইটের ফ্রেমটি নিন। ফ্রেমটি সিলিং রােজের ৬ ইঞ্চি নিচে আড়াআড়ি ভাবে বসান। এবার স্ক্রু ড্রাইভার দিয়ে ফ্রেমের ৩টি স্ক্রু পয়েন্ট দেয়ালে চিহ্নিত করে নিন। তারপর দেয়াল ড্রিল করুন। টিউব লাইটের ফ্রেম দেয়ালে বসানাের কাজটি পরে করা হবে। এরপর ফ্যানের পয়েন্ট তৈরির কাজ করতে হবে।

ফ্যানের পয়েন্টঃ

হাউজ ওয়ারিং

হাফ ইঞ্চির চ্যানেল নিন। চ্যানেলটি জয়েন্ট বক্সের উপরের দিক থেকে ফ্যানের পয়েন্ট পর্যন্ত বসিয়ে ফেলুন। এবার সিলিং রােজের একটি বক্স নিন। আগের নিয়মে সিলিং রােজের বক্স বসানাের জন্য স্ক্র পয়েন্ট দেয়ালে চিহ্নিত করে নিন। তারপর দেয়াল ড্রিল করে সিলিং রােজ বসান।

সুইচ বাের্ডঃ

হাউজ ওয়ারিং

দেড় ইঞ্চি চওড়া চ্যানেল নিন। জয়েন্ট বক্সের নিচের ঠিক মাঝ বরাবর থেকে দেড় ইঞির চ্যানেল প্রধান সুইচ বাের্ড পর্যন্ত বসান। অর্থাৎ যে সুইচ বাের্ডে ফ্যান, লাইট ইত্যাদির সুইচ এবং সকেট থাকবে সেই বাের্ড পর্যন্ত চ্যানেল বসান। তারপর আগের নিয়মে সুইচ বাের্ডের নিচের অংশ দেয়ালে লাগান।

House Wiring Bangla – 1 । হাউজ ওয়ারিং কি ও বিভিন্ন টুলস সম্পর্কে আলোচনা পড়ুন

House Wiring Bangla – 2 | হাউজ ওয়্যারিং শুরুর আগে যা জেনে রাখা জরুরী পড়ুন 

House Wiring Bangla – 3  | হাউজ ওয়্যারিং এর ধরণ এবং ধাপসমূহ

House wiring সম্বন্ধে বিস্তারিত পড়ুন

courtesy: ঢাকা আহছানিয়া মিশন

4 COMMENTS

  1. Md Golam Kibria

    I want to know how to operate genaretor and maintenance

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here