গল্পে গল্পে বৈদ্যুতিক পাখার গতি এবং বিদ্যুৎ বিলের সম্পর্ক নিরুপণ

এই প্রশ্নটির উত্তর দেওয়ার আগে গল্পের ছলে বৈদ্যুতিক ফ্যানের কার্যপ্রণালীটি তুলে ধরতে চাই।

এনার্জি ড্রিংক ও বৈদ্যুতিক ফ্যানের গতি

একটি দৃশ্যপট কল্পনা করুন। মনে করুন আপনি রাস্তায় দৌড়াবেন। এখন দৌড়াতে গেলে আপনার এনার্জির প্রয়োজন হবে। তাই আপনি এনার্জি ড্রিংক খেয়ে নিলেন। এনার্জি ড্রিংক খেয়ে আপনি সজোরে দৌড়াতে লাগলেন। উল্লেখ্য যে, রাস্তাটা পুরোপুরি মসৃণ নয়। কোথাও কোথাও বন্ধুর অংশও রয়েছে। এক্ষেত্রে আপনার গতির নিয়ন্ত্রক হিসেবে কাজ করছে রাস্তার প্রকৃতি। বৈদ্যুতিক ফ্যান, বিদ্যুৎ ও রেগুলেটরের সম্পর্কটাও একই রকম।

একটি পাখায় একটি বৈদ্যুতিক মোটর এবং কয়েকটি ধাতব ব্লেড (সাধারণত ৩টি) সংযুক্ত থাকে। যখন আমরা একটি পাখার সুইচ অন করি, তখন ভোল্টেজ পার্থক্যের জন্য মোটরটির মধ্য দিয়ে বিদ্যুৎ যায় এবং তার ফলাফল হিসাবেই পাখাটি ঘুরতে থাকে। যেমনটি এনার্জি ড্রিংক খেয়ে আপনি পূর্ণদমে দৌড়ানো শুরু করেছিলেন। নিয়ন্ত্রক বা রেগুলেটর মোটরের ভোল্টেজ নিয়ন্ত্রণ করে এবং মোটরের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত বিদ্যুতের পরিমাণ কমিয়ে বা বাড়িয়ে দেয়। ঠিক যেভাবে রাস্তার প্রকৃতি আপনার দৌড়ের গতি নিয়ন্ত্রণ করেছে। সুতরাং, একটি পাখার ভোল্টেজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ সম্পূর্ণরূপে তার নিয়ন্ত্রক বা রেগুলেটরের ওপর নির্ভরশীল। আর একটি পাখার ভোল্টেজের পরিমাণ তার ঘূর্ণন গতির সমানুপাতিক। অর্থাৎ ভোল্টেজ যত বাড়বে, পাখার গতিও ততটাই বাড়বে। গল্পের ছলে বললে এনার্জি ড্রিংক যত খাবেন আপনার দৌড়ানোর শক্তিও তত বাড়বে।

ফ্যানের গতি ও বিল;
এনার্জি ড্রিংক এবং বৈদ্যুতিক পাখার গতি
এনার্জি ড্রিংক এবং বৈদ্যুতিক পাখার গতি

এবার মূল আলোচনায় আসা যাক। অনেকেই ধারণা করে থাকেন যে ফ্যানের গতি বাড়ালে বিদ্যুৎ বিল বাড়ে আর গতি কমালে বিদ্যুৎ বিল কমে। অন্য গ্রুপ ভাবেন যে গতি বাড়ালে কিংবা কমালেও বিদ্যুৎ বিল একই থাকে। আমি কিন্তু দুই পক্ষের সাথে সহমত। লাগলো ত ঘটকা? দুই পক্ষের সাথে সহমত এই কারণেই যে দুই পক্ষই কিন্তু সঠিক। তবে পুরোপুরিভাবে নয়। ফ্যান এর গতি কম বৃদ্ধির সাথে বিদ্যুৎ বিলের পরিবর্তন হতেও পারে আবার নাও হতে পারে। ব্যাপারটি নির্ভর করছে আপনি কোন ধরনের রেগুলেটর ব্যবহার করছেন তার উপর। বর্তমান বাজারে দুই ধরনের রেগুলেটর পাওয়া যায় —

ইলেকট্রিক্যাল রেগুলেটর (Electric Regulator)

এই রেগুলেটরগুলিতে পাখার ভোল্টেজ হ্রাস করার জন্য পরিবর্তনশীল রোধ বসানো থাকে। যখন পাখার ভোল্টেজ কমানো হয় তখন রোধটি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে আর বিদ্যুৎ সরবরাহ কমার কারণে পাখার গতিও কমে যায়। কিন্তু এর ফলে পাখার ভোল্টেজ তথা গতি কমিয়ে যে বিদ্যুৎ বাঁঁচানো হয়, সেই বিদ্যুৎ এই রোধ-মধ্যস্থ তাপশক্তিতে রূপান্তরিত হয়ে যায়। অর্থাৎ শেষ পর্যন্ত, এই রেগুলেটরের মাধ্যমে পাখার গতি কমিয়ে বিদ্যুৎ খরচ বিশেষ কমে না বললেই চলে। ব্যাপারটিকে উপরোক্ত গল্পের সাথে মিলিয়ে বুঝার চেষ্টা করি। যদি লোকটি এনার্জি ড্রিংক কম খেত তাহলে সে শক্তি কম অর্জন করত এবং ক্লান্ত হয়ে পড়ত। ফলে অর্জিত এনার্জি তার তেমন কাজে আসবেনা বললেই চলে।

ফ্যানের গতি ও বিল;
ইলেকট্রিক্যাল রেগুলেটর
ইলেকট্রিক্যাল রেগুলেটর

ইলেকট্রনিক রেগুলেটর (Electronic Regulator)

এই রেগুলেটরগুলিতে পাখার ভোল্টেজ হ্রাস করার জন্য মূলত সুইচিং ডিভাইস ট্রায়াক থাকে যার গেইটে ট্রিগার নিয়ন্ত্রণ করে ফ্যানের ভোল্টেজের সাইন ওয়েভকে নিয়ন্ত্রণ করা হয় এবং ভোল্টেজের আরএমএস ভ্যালুকে পরিবর্তন করে ফ্যানের গতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়। এইগুলো কখনই গরম হয়ে ওঠে না, ফলে পাখা যখন কম গতিতে চলে তখন যথেষ্ট বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়। সাধারণত ইলেকট্রনিক রেগুলেটরগুলি ইলেকট্রিক রেগুলেটরগুলির থেকে প্রায় ৪০ শতাংশ বেশী বিদ্যুতসাশ্রয়ী। ব্যাপারটিকে যদি আবারো গল্পের সাথে সামঞ্জস্যতা করি তাহলে এভাবে বলা যায়, যদি লোকটি যদি এমন কোন এনার্জি ড্রিংক খেত যার সামান্য পরিমাণ খেলেই ঘোড়ার গতিতে ছুটতে পারা যায় এবং দেহ ক্লান্ত হয়না তাহলে তার সেই এনার্জি ড্রিংক যথেষ্ট কাজে আসবে। এখানে এই পাওয়ারফুল এনার্জি ড্রিংকটি হল ট্রায়াক।

ফ্যানের গতি ও বিল;
ইলেকট্রনিক রেগুলেটর
ইলেকট্রনিক রেগুলেটর

তাই পরিশেষে বলা যেতে পারে, বৈদ্যুতিক পাখা কম গতিতে চালালে বিদ্যুৎ খরচ তখনই কম হবে যখন ইলেকট্রিক রেগুলেটরের পরিবর্তে ইলেকট্রনিক রেগুলেটর ব্যবহৃত হবে।

বিদ্যুৎ নিয়ে মজাদার কিছু পোস্ট

বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে চলে আসার রহস্য

ইলেকট্রন এবং বিদ্যুৎ প্রবাহ বিপরীত কেন?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here