সিরিজ-প্যারালাল সার্কিট নিয়ে ধাঁধার সহজ সমাধান | Series-Parallel Circuit

0
300

ইলেকট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর একটি ব্যাসিক কোর্স হল ডিসি সার্কিট এনালাইসিস। যেখানে সিরিজ প্যারালাল মিশ্র সার্কিটের বেশ কিছু সমস্যা থাকে যেখানে তুল্য রোধ, কারেন্ট, পাওয়ার, ভোল্টেজ এসব ক্যালকুলেশন করতে বলা হতে পারে। 

কিন্তু কোন মিশ্র সার্কিটের সবচেয়ে বড় ধাঁধা হল কোনটা সিরিজে আছে আর কোনটা প্যারালালে আছে সেটা বের করা। তাই এই প্রব্লেমগুলো সলভ করতে বেশ বেগ পেতে হয় অনেককে। কিন্তু কিছু টেকনিক এপ্লাই করতে পারলে এই সমস্যাগুলো খুব সহজ হয়ে যায়। তন্মধ্যে কিছু টেকনিক আপনাদের সাথে আজ শেয়ার করব। চলুন শুরু করা যাক। 

করমর্দন বা কোলাকুলি পদ্ধতি

সিরিজ কম্বিনেশনকে হ্যান্ডশেক বা করমর্দন প্রক্রিয়ায় সাথে সহজেই তুলনা করা যেতে পারে। কারণ সিরিজ কম্বিনেশনে দুটো ইলিমেন্টের মধ্যে একটি সাধারণ বিন্দু থাকে। আবার প্যারালাল কম্বিনেশনকে কোলাকুলির সাথে তুলনা করা যেতে পারে। কারণ এক্ষেত্রে দুটো বা তার অধিক ইলিমেন্টের মধ্যে দুটো সাধারণ বিন্দু পরিলক্ষিত হয়। এভাবে হ্যান্ডশেক এবং কোলাকুলি সিস্টেমের সাথে তুলনা করলে সিরিজ প্যারালাল কম্বিনেশন বুঝাটা অনেক সহজতর হবে আশা করি।

কারেন্ট বিভাজন পদ্ধতি

কারেন্ট বিভাজন পদ্ধতি অনুসরণ করে সিরিজ প্যারালালের ধাঁধা সহজেই সমাধান করা যায়। কারণ প্যারালাল সার্কিটে কারেন্ট একটি নির্দিষ্ট নোডে গিয়ে দুইভাগে ভাগ হয়ে যায়। আর সিরিজে ভাগ না হয়ে ইলিমেন্টগুলোর মধ্যে একই মানের কারেন্ট প্রবাহিত হয়। তাই মিশ্র সার্কিটের যেখানেই কনফিউশন তৈরি হবে কারেন্ট বিভাজন পদ্ধতি এপ্লাই করে দেখবেন। বিষয়টি অনেক সহজ হয়ে যাবে।

পয়েন্ট মেথড 

যদি কোন মিশ্র সার্কিটে পয়েন্ট মেথড এপ্লাই করা হয় খুব জটিল সার্কিটও সহজভাবে ধরা দিতে বাধ্য। আর এই পদ্ধতিটি আপনাদের নিকট সহজভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করছি। নিচের চিত্রটি লক্ষ্য করুন। এখানে আপাতত কোনটি সিরিজ এবং কোনটি প্যারালাল তা বুঝার উপায় নেই। কিন্তু যদি পয়েন্ট মেথড এপ্লাই করেন তাহলে ব্যাপারটি খুবই সহজ।

সিরিজ প্যারালাল
পয়েন্ট মেথড
  • এখানে তিনটি রোধ শর্ট করা আছে। সংযোগ বিন্দুগুলোকে  a, b দিয়ে চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হল। 
  • অর্থাৎ তারা পরস্পর প্যারালালে সংযুক্ত করা আছে। 
  • লক্ষ্য করলে দেখবেন যে তার দিয়ে শর্ট করা আছে তার উভয় পাশে একই বিন্দু দিয়ে চিহ্নিত করা আছে। এটাই রুল। 
  • শর্ট তারের উভয় পাশে সেইম বিন্দু থাকতে হবে। কারণ তার মধ্যে কোন রোধ নেই। 
  • a, b দিয়ে চিহ্নিত করার পর দেখা যাচ্ছে তিনটি রোধে দুইটি করে সাধারণ বিন্দু তৈরি হয়েছে। 

আর এই তিনটি পদ্ধতি অনুসরণ করলে আমার মনে হয় মিশ্র সার্কিট সমাধানের সময় সিরিজ প্যারালালের কনফিউশন তৈরি হবার কোন প্রশ্নই উঠেনা।

 আরো কিছু আর্টিকেল

Series Circuit | সিরিজ সার্কিট ও কিছু গুরুত্বপূর্ণ গাণিতিক সমস্যার সমাধান

Parallel Circuit | প্যারালাল সার্কিট ও কিছু গুরুত্বপূর্ণ গাণিতিক সমাস্যার সমাধান

সিরিজে সংযুক্ত দুটি ১০০ ওয়াটের বাতির মোট পাওয়ার কত হবে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here